Download Free FREE High-quality Joomla! Designs • Premium Joomla 3 Templates BIGtheme.net
Home / স্বাস্থ্য / গর্ভবতী নারীর রোজা নিয়ে যত কথা

গর্ভবতী নারীর রোজা নিয়ে যত কথা

স্বাস্থ্য ডেস্ক :: গর্ভবতী নারীরাও কি রোজা রাখতে পারবেন? এই প্রশ্নটা প্রায়ই শুনে থাকি। রমজান মাসে রোজা রাখা নিয়ে গর্ভবতী নারীরা চিন্তিতও হয়ে পড়েন।

হয়তো গর্ভবতী মা রোজা রাখতে চাইলেন, কিন্তু বাদ সাধলেন আপনজনেরা। হবু মা এবং তার অনাগত সন্তানের সুস্থতা নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়েন তারা। তবে বিশেষজ্ঞদের মতে, গর্ভাবস্থায় রোজা রাখলে কোনো ক্ষতি নেই। তাই এ নিয়ে খুব দুশ্চিন্তারও কিছু নেই।

চিকিৎসকরা বলছেন, গর্ভবতী নারীরাও রোজা রাখতে পারবেন। তবে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে মেডিকেল চেকআপ এবং চিকিৎসকের পরামর্শ বাধ্যতামূলক।

তবে রোজা রাখার আগে কিছু বিষয় অবশ্যই জানা জরুরি। আসুন জেনে নেই গর্ভবতী নারীরা রোজা রাখার আগে যে বিষয়গুলো অবশ্যই খেয়াল করবেন।

মেডিকেল চেকআপ
গর্ভবতী নারীদের রোজা থাকতে কোনো সমস্যা নেই। তবে সেক্ষেত্রে ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী চলতে হবে। রোজার আগে ডাক্তারের কাছ গিয়ে চেকআপ করানোটা খুব জরুরি।

পুষ্টিকর খাদ্য
গর্ভবতী মায়েরা যেহেতু সারা দিন কিছু খেতে পারবেন না, তাই সাহরিতে পুষ্টিকর খাদ্য বেশি খেতে হবে। খাবারে রাখতে হবে দুধের প্রাধান্য।

ডিম, মাছ, মাংস
রোজায় গর্ভবতী নারীরা ডিম, মাছ-মাংস পরিমাণ মতো খেতে হবে। কারণ একজন সাধারণ মানুষের তুলনায় অন্তঃসত্ত্বা মায়ের পুষ্টির প্রয়োজন বেশি। এক্ষেত্রে তারা ডাক্তারের কাছ থেকে রোজার আগে ও পরের সময়ের খাদ্য তালিকা নিয়ে নিতে পারেন। এতে মা ও বাচ্চা দুজনই সুস্থ থাকবেন।

রোজার আগে চেকআপ
গর্ভবতী মায়ের রুটিন চেকআপ ছাড়াও রোজা শুরুর আগে তার চেকআপ করাতে হবে। কারণ মনে রাখতে হবে একজন অন্তঃসত্ত্বা নারী মানে মা ও শিশু দুজনই।

১০ ঘণ্টা ঘুম
রমজানেও সময় বের করে প্রতিদিন ১০ ঘণ্টা ঘুমাতে ও পর্যাপ্ত বিশ্রাম নিতে হবে গর্ভবতী মাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *